বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

স্টার ফার্নিচারের নতুন শাখা এবার ওজনপার্কে ( দেখুন শুনন অথবা পড়ুন )

নবযুগ ডেস্ক

আপডেট: ০০:০০, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

বাঙালী অধ্যুষিত ওজনপার্কে স্টার ফার্নিচারের নতুন শাখা উদ্বোধন হচ্ছে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার। এটি হবে নিউইয়র্ক মহানগরে স্টারের পঞ্চম শাখা। মঙ্গলবার নিউইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় স্টার পরিবার। 

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্টারের অংশীদার সদস্য রকি আলিয়ান, সাবরিনা খান, আতিক ইকবাল এবং আইরিন সাদিয়া। এছাড়া এটিএম হেলালুর রহমান, মাহাতাব হোসাইন চৌধুরী ও কামরুল হাসানও সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিতছিলেন।  

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, নতুন শাখা খোলা উপলক্ষ্যে প্রতিটি ফার্নিচার ও ম্যাট্র্রসে ২০% ছাড়, নিউইয়র্কের যেকোনো স্থানে, যেকোনো পণ্যের জন্য ফ্রি ডেলিভারি, প্রতিজন ক্রেতার জন্যই থাকবে বিশেষ উপহার থাকবে। 

লিখিত বক্তব্যে রকি আলিয়ান বলেন, আমার পাশে উপস্থিত আছেন স্টার পরিবারের অংশীদারগণ। এদের মাঝে আছেন, সাবরিনা খান, আতিক ইকবাল এবং আইরিন সাদিয়া, স্টার পরিবারের আরো উপস্থিত আছেন এটিএম হেলালুর রহমান, মাহাতাব হোসাইন চৌধুরী ও কামরুল হাসান। বাংলাদেশে থাকার কারণে ষ্টার ফার্নিচারের প্রতিষ্ঠাতা এবং আমার বড় ভাই দুলাল হোসাইন মাল আজ আমাদের মাঝে উপস্থিত হতে পারেননি। কিন্তু বাংলাদেশ থেকেই আপনাদের সালাম এবং ধন্যবাদ জানিয়েছেন। 

তিনি বলেন, আমাদের অর্থ, শ্রম ও উদ্যোমী প্রচেষ্টায় এই প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন ব্রাঞ্চ সুনামের সাথে এগিয়ে চলছে। স্বল্প মূল্যে গুণগত মানের ফার্নিচার এবং ম্যাট্রেস সবার বাসায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে এই পথচলায় আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাদের সকলকে আরো একবার জানাই আন্তরিক ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা।

রকি আলিয়ান বলেন, আগামী ১৭ ই ফেব্রুয়ারি স্টার ফার্নিচারের আরো একটি শাখা উদ্ভোধন হতে যাচ্ছে । ব্যাপক বাঙ্গালী অধ্যুষিত ব্রুকলিনের এবং ওজন পার্কের সীমারেখায় এই শাখাটি অবস্থিত (ঠিকানা: ১১৭৭ খওইঊজঞণ অঠঊঘটঊ, ইজঙঙকখণঘ, ঘণ ১১২০৮)। এই শাখাটি নিউইয়র্ক সিটিতে স্টার ফার্নিচারের ৫ম শাখা হতে যাচ্ছে। 

তিনি বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে আমরা অনেক কাছের মানুষদের হারিয়েছি। বিশ্ব অর্থনীতির মন্দাসহ নানা কারণে বহু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কম-বেশি ক্ষতিগ্রস্থ। সেই পরিস্থিতি কাটিয়ে আমরা এগিয়ে চলার চেষ্টা করছি। আপনাদের সহযোগিতা পেলে আমরা আরো এগিয়ে যাবো। কমিউনিটির সেবায় কাজ করে যাবো সততার সাথে।

রকি আলিয়ান বলেন, নিউইয়র্কের যেকোনো স্থানে ষ্টার ফার্নিচার বাংলাদেশি ক্রেতাদের সর্ব সময় ফ্রি ডেলিভারি দিয়ে আসছে। ২০১৮ সাল থেকে প্রতিটি শাখায়ই ফাইন্যান্সিইং এর সুযোগ রাখা হয়েছে। ক্রেতারা চাইলে ফোনেও অর্ডার করার ও সুযোগ রয়েছে। আমরা ঈদ সেল, ট্যাক্স রিফান্ডসহ বিভিন্ন দিবসে ‘বিশেষ সেল’ অফার দিয়ে আসছি। ন্যূনতম মূল্যে গুণগত মানের ফার্নিচার এবং ম্যাট্রেস পৌঁছে দিচ্ছি আপনাদের নিজ বাসায় কিংবা বাড়িতে।

নতুন শাখার উদ্ভোধন উপলক্ষেও থাকবে বিশেষ অফার- যেমন     প্রতিটি ফার্নিচার ও ম্যাট্রেসেই থাকবে ২০% ছাড়, নিউইয়র্কের যেকোনো স্থানে, যেকোনো পণ্যের জন্যই ফ্রি ডেলিভারির সুযোগ (যেকোনো এমাউন্ট হতে পারে) এবং প্রতিজন ক্রেতার জন্যই থাকবে বিশেষ উপহার, আর এই প্রচারটুকুও আমরা চাই প্রতিবারের মতো এবার ও আপনাদের মাধ্যমে হোক।

প্রসঙ্গত: ষ্টার ফার্নিচারের  শাখাগুলো হলো    ৭৮-১৪ রোজভেল্ট এভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস, ১৯৩৫ ওয়েশচেস্টার এভিনিউ, ব্রঙ্কসস (পার্কচেস্টার), ৩৫৮ ইস্ট ২০৪ স্ট্রিট, নর্থ ব্রঙ্কস,১১৬-১৩ জ্যামাইকা এভিনিউ, রিচমন্ড হিল এবং ৫ম শাখা অর্থাৎ, ১১৭৭ লিবার্টি এভিনিউস্থ নতুন ব্রাঞ্চটির শুভ উদ্ভোধন এ মাসেই হতে যাচ্ছে। 
 

শেয়ার করুন: