রোববার, ১৬ জুন ২০২৪

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

ভাড়া ফাঁকিতে এমটিএর ক্ষতি ৬৯০ মিলিয়ন ডলার

নবযুগ রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২:৪২, ২০ মে ২০২৩

ভাড়া ফাঁকিতে এমটিএর ক্ষতি ৬৯০ মিলিয়ন ডলার

ফাইল ছবি

ভাড়া ফাঁকির কারণে গত বছর মেট্রোপলিটান ট্রান্সপোর্টেশন অথোরিটি (এমটিএ) ৬৯০ মিলিয়ন ডলারের ক্ষতির মুখে পড়েছিল। এই ক্ষতি হ্রাস করার পরিকল্পনা ঘোষণা করার সময় তথ্যটি প্রকাশ করা হয়েছে।

ভাড়া ফাঁকি রোধে এমটিও সাবওয়ে গেটগুলোতে নতুন প্রযুক্তি স্থাপন, জরিমানা বাড়ানো, বাসে জনবল বৃদ্ধি করা, স্টুডেট মেট্রোকার্ড সহজ করা এবং জনসচেতনতা বাড়ানোর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

প্যানেলের কো-চেয়ারওম্যান রোজমন্ডে পিয়ের-লুই বলেন, ‘আমরা ভাড়া ফাঁকি ভয়াবহ পর্যায়ে দেখছি। সমস্যাটি এত ভয়াবহ যে অনেকে তা চিন্তাও করতে পারে না। এমন অবস্থা চলতে থাকলে এমটিএর পক্ষে মানসম্মত পরিবহন ব্যবস্থার যোগান দেওয়া সম্ভব নয়।

এমটিএ চেয়ারম্যান জানো লিবার বলেন, কর্মজীবী মধ্যবিত্ত শ্রেণি প্রয়োজনকে আমরা অবহেলা করতে পারি না। তাদের পরিষেবা প্রদান করার জন্য অর্থ ব্যয় করতে হবে। অবকাঠামোতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। আর ভাড়া ফাঁকি রোধ করে তা করা সম্ভব।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, প্রতি তিনজন যাত্রীর একজন টিকিট না কেটেই গাড়িতে ওঠে। ফলে সংস্থার বছরে ৩১৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি হয়।

এছাড়া প্রতি আট সাবওয়ে রাইডারের একজন ভাড়া দেয় না। এর ফলে এমটিএর বছরে ক্ষতি হয় ২৮৫ মিলিয়ন ডলার।

জরুরি নির্গমন পথগুলো খোলা থাকায় ভাড়া ফাঁকি দেওয়া সহজ হয় বলেও মনে হচ্ছে।

ভাড়া ফাঁকি দেওয়ার পথগুলো বন্ধ করার জন্য বেশ তৎপর হয়েছে কর্তৃপক্ষ। তারা বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। নতুন প্রযুক্তিও ব্যাপারে সহায়ক হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন: