সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

বন্দুকে সয়লাব হবে নিউইয়র্ক?

সুপ্রিম কোর্টের রুলিং

নবযুগ রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২:১১, ২৪ জুন ২০২২

বন্দুকে সয়লাব হবে নিউইয়র্ক?

ফাইল ছবি

মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে আত্মরক্ষার জন্য বন্দুক বহন আরো সহজ করার রায় দেওয়ার প্রেক্ষাপটে নিউইয়র্ক সিটির অবস্থা কেমন হবে তা নিয়ে চিন্তা দেখা দিয়েছে। মেয়র এরিক অ্যাডামসসহ অনেকেই অবশ্য বলছেন যে নগরীতে এর প্রভাব তেমন পড়বে না।

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের কমিশনার কিচান্ট সেওয়েল সিটি হলে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘রায় সত্ত্বেও শিগগিরই কিছু বদলাবে না। আপনার কাছে যদি বাড়িতে অস্ত্র রাখার অনুমতি থাকে, তবে আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই তা বহন করতে পারবে না। আর নিউইয়র্ক সিটিতে অবৈধভাবে অস্ত্র বহন করলে গ্রেফতার হতে হবে।’

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের হিসাব মতে, নিউইয়র্কের প্রায় ১৬ হাজার লোকের কাছে তাদের বাড়িতে অস্ত্র রাখার অনুমতি রয়েছে। আর ৭০০ ব্যবসায়ীর কাছে কাজে যাওয়ার সময় হ্যান্ডগান রাখার অনুমতি আছে।

অন্যদিকে কাজের কারণে প্রায় সাড়ে তিন হাজার লোককে বন্দুক বহন করার অনুমতি রয়েছে। আবার ২,৪০০ সিকিউরিটি গার্ডের অস্ত্র বহন করার অনুমতি থাকলেও তারা সেগুলো তাদের বাড়িতে নিয়ে যেতে পারে না।

মেয়র এরিক অ্যাডামস সুপ্রিম কোর্টের ৬-৩ ভোটের রায়কে ‘আতঙ্কজনক’ হিসেবে অভিহিত করে বলেছেন, ‘নিউইয়র্ক সিটিতে এই রায়ের খুব বেশি প্রভাব পড়ার আশঙ্কা নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের শক্তিতে যতটুকু কুলায়, আমর সবকিছুই করব। প্রতিটি আইনগত সুযোগ আমরা গ্রহণ করব।’

তিনি বলেন, নগরী ‘স্পর্শকাতর অবস্থান’ শনাক্ত করার কাজ শুরু করবে। এসব স্থানে বন্দুক বহন করা নিষিদ্ধ করা হবে। তাছাড়া কেবল যোগ্য লোকেরাই যাতে পিস্তল বহন করার সুযোগ পায়, সেজন্য আবেদনপ্রক্রিয়াও পর্যালোচনা করা হবে।
আর গভর্নর ক্যাথি হোকুল বলেছেন, হাইকোর্টের সিদ্ধান্ত ‘শিগগিরই কোনো আইনকে বদলাবে না।’

ম্যানহাটানের অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে হোকুল বলেন, তিনি নতুন বন্দুক বিধিনিষেধ প্রণয়ন করার জন্য আইনপ্রণেতাদের প্রতি অনুরোধ জানাবেন।
 

শেয়ার করুন: