বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

প্রেমিকার রাজকীয় জন্মদিনের জন্য 

বাংলাদেশি বসকে খুন ৪ লাখ ডলার চুরি

নবযুগ রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২০:০২, ১৪ জুন ২০২৪

বাংলাদেশি বসকে খুন ৪ লাখ ডলার চুরি

ছবি: সংগৃহীত

প্রেমিকার মন পেতে বাংলাদেশি বস ফাহিম সালেকে খুন করা হলো। বুঝতে পেরেছিলেন, তিনি ধরা পড়ে যাবেন। কিন্ত তবুও প্রেমিকার জন্য ‘সবচেয়ে স্মরণীয় জন্মদিনের’ পার্টি আয়োজন করেছিলেন। প্রথম যৌবন যাকে দিয়েছিলেন, সেই নারীকে পেতে টাইরেস হাসপিল নামের ২৫ বছরের তরুণ যা করেছেন, তা কল্পকাহিনীকেও হার মানায়। 

ফোর্ডহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল ফরেনসিক সাইকোলজিস্ট ডা. ব্যারি রোজেনফিল্ড বেশ ভালোভাবেই হাসপিল এবং তার ওই সময়ের গার্লফ্রেন্ড ম্যারিন চাভেজের মধ্যকার রোমান্টিক সম্পর্কের বর্ণনা দিয়েছেন। তারা দুই বছর ধরে ডেট করেছিলেন, নিউইয়র্ক সিটিতেই বাস করছিলেন।
হাসপিলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীর আলোকে রোজেনফিল্প বলেন, ‘এই মেয়েটির সাথেই হাসপিল প্রথমবারের মতো যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিল।’
তিনি বলেন, ‘হাসপিল একেবারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে- এই হলো আমার জীবনের প্রথম ভালোবাসা। এই নারীকে ছাড়া সে বাঁচতে পারবে না। তার কাছে এই মেয়েই সবকিছু।’
হাসপিল তার নিয়োগকর্তার কাছ থেকে চার লাখ ডলার চুরি করে তার গার্লফেন্ডের সাথে জাঁকজমকপূর্ণ জীবনযাত্রা নির্বাহ করছিল।
হাসপিলের তিনবার সাক্ষাতকার নিয়েছিলেন রোজেনফিল্ড। তিনি জানান, হাসপিল ২০২০ সালের জুলাই মাসে ফাহিম সালের লোয়ার ইস্ট সাইড অ্যাপার্টমেন্টে তাকে হত্যা করেন। ‘চরম আগেবপ্রবণ বাধা সৃষ্টির’ কারণে এই হত্যা করা হয়।
হাসপিলের অবশ্য পারিবারিক কিছু সমস্যা ছিল। তিনি কখনো তার বাবাকে দেখেননি। তার পরবার সদস্যরা অনেকবারই তাকে বলেছিল যে তিনি হলেন ‘ধর্ষণের ফল’ এবং একসাথে অ্যানিমি কার্টুন দেখার সময় অনেকবার তার চাচার হাতে যৌন নিগ্রহের শিকার হয়েছেন।
তিনি জানান, হাসপিল ছোটকাল থেকেই নির্যাতনের মুখে পড় হয়েছেন, তার মাও স্বাভাবিক ছিলেন না।
তবে হাসপিল তার জীবনের এসব ঘটনা নিজের মধ্যেই রাখতেন। তারপর ২০১৮ সালে তিনি চাভেজের প্রেমে পড়েন। আর নিজের জীবনের অন্ধকার দিক থাকায় এই প্রেমিকাকে হারানোর আতঙ্কে থাকতেন।
আর প্রেমিকার চাহিদা পূরণ করার জন্য একদিকে কাজে ফাঁকি দিতেন, অন্যদিকে তার বস সালেহ এর কাছ থেকে অর্থ তসরুপ করতেন। নাইজেরিয়াভিত্তিক মোটরবাইক কোম্পানি গোকাদার সিইও এবং ভেঞ্জার ক্যাপিটালিস্ট সালেহ একবার মনোযোগী না হওয়ায় হাসপিলকে বরখাস্ত করার হুমকিও দিয়েছিলেন।
তবে ২০১৯ সালের মে মাসে চাভেজ জানান যে তিনি ফ্রান্সে ফিরে যাবেন। তবে আরেক বছর ইন্টার্ন করার জন্য নিউইয়র্কে ফিরে আসবেন।
তবে এর মধ্যেই বিভিন্নভাবে তিনি তার বস সালেহর কাছ থেকে চার লাখ ডলার চুরি করে ফেলেছেন। তার মধ্যে এখন ভয় ঢুকে গেছে যে প্রেমিকা যদি এই চুরির খবর জানতে পারে, তবে সমস্যা হবে। এ কারণে তিনি বসকেই হত্যা করে ফেলেন। অপরাধ প্রমাণিত হলে হাসপিলের ২০ বছর পর্যন্ত কারাদ- হতে পারে।
 

শেয়ার করুন: