রোববার, ১৬ জুন ২০২৪

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

সরকার দলীয়দের তীর্যক মন্তব্যের কবলে পিটার হাস

রাজনীতির আগুনে ঘি ঢাললো তফসিল, ভোট নিয়ে শঙ্কা 

ঢাকা অফিস

প্রকাশিত: ১৯:৩৯, ১৭ নভেম্বর ২০২৩

রাজনীতির আগুনে ঘি ঢাললো  তফসিল, ভোট নিয়ে শঙ্কা 

ফাইল ছবি

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী জানুয়ারি ভোট। বিএনপিসহ বিরোধীদের সঙ্গে কোনো প্রকার আলোচনা ছাড়াই নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করায় ভোট নিয়ে শঙ্কা এখনো কাটেনি। যদি ভোটের পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমে পড়েছে সরকারি দল আওয়ামী লীগ। আজ শুক্রবার দলটির সভপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় মনোয়ন ফরম সংগ্রহ করছেন। দলের অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা আগামীকাল শনিবার ফরম সংগ্রহ করবেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী আজ শুক্রবার বিকেলে তেজগাঁওয়ে অবস্থিত আওয়ামী লীগের জেলা কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভায় অংশ নেবেন।  সেই সভা থেকেই তিনি ভার্চুয়ালি মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। যে কার্যক্রম চলবে মূলত বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে অবস্থিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে। প্রধানমন্ত্রী নিজের জন্য মনোনয়ন ফরম শুক্রবারই কিনবেন। বাকি মনোনয়ন প্রত্যাশীরা শনিবার থেকে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে থেকে ফরম কিনতে পারবেন।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ১৮ নভেম্বর থেকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দলীয় মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ জমা প্রদানের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্য প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ জমা দিতে পারবেন।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোর চাপ উপেক্ষা করে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর দেশজুড়ে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে রাজনীতিক বোদ্ধারা বলছেন, ভারতের প্রচ্ছন্ন মদদে আওয়ামী লীগ এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিষয়টিকে আমলে নিলে সেটি সরকারের জন্য শুভ নাও হতে পারে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তফসিল ঘোষণার পরপরই রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে আনন্দ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ। তবে বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলো বিক্ষোভ মিছিল করে। তফসিলের প্রতিবাদে ডাকা হরতালের মতো কর্মসূচিও। বিএনপি, জামায়াত, ইসলামী আন্দোলন, গণঅধিকার পরিষদ বাম দলগুলো তফসিলকে প্রত্যাখান করে হরতাল আহ্বান করেছে। অবিলম্বে নির্বাচন প্রক্রিয়া স্থগিত করা না হলে দেশে গৃহযুদ্ধ লেগে যাবে বলেও হুমকি দিয়েছে বিরোধী দলগুলো।

এদিকে তফসিল ঘোষণার পর সারা দেশে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ব্যাপক তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ্যাব-পুলিশ-বিজিবিসহ সেনা বাহিনীর সদস্যদের টহল অব্যাহত রয়েছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধরপাকড় চলছে সারা দেশে।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, গত চব্বিশ ঘণ্টায় সারা দেশে তাদের দলের কয়েক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মূলত নেতাকর্মীদের মধ্যে ভয়ভীতি ছড়াতেই সরকার এমন আগ্রাসী ভূমিকা নিয়েছে বলে মনে করছে দলটি।

বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে বরাবরই সরব ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস। বৃহস্পতিবারও তার ব্যাপক তৎপরতা ছিলো। তিনি সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে বৈঠকের পাশাপাশি জাতীয় পার্টির সঙ্গেও বৈঠক করেন। তার এমন নজিরবিহীন তৎপরতায় অনেকেই মনে করেছিলেন শেষ মুহূর্তে এসেও তফসিল ঘোষণার প্রক্রিয়া স্থগিত করতে পারে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু সেটি হয়নি। অবস্থায় শাসক গোষ্ঠীর নেতাকর্মীদের দ্বারা ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন পিটার হাস। এর মধ্যে শুক্রবার খবর বের হয় তিনি ঢাকা ছেড়েছেন। তার ঢাকা ছাড়ার বিষয়টি গণমাধ্যমে এলে হৈচৈ পড়ে যায়। পরে সরকারের তরফে বলা হয় পিটার হাসের বিষয়ে সরকার অবগত রয়েছে। তবে তিনি কোথায় গিয়েছেন সে ব্যাপারে কিছুই বলা হয়নি। যদিও একটি সূত্র জানিয়েছে বাইডেন প্রশাসনের জরুরি তলবে তিনি ওয়শিংটনে গিয়েছেন। খুব শিগগিরই আবার ঢাকায় ফিরে কাজে যোগ দিবেন তিনি।

এদিকে নির্বাচন নিয়েপিটার ডি হাসের মিশন ব্যর্থ হয়েছে’- সরকার দলীয়দের এমন দাবিকে সমর্থন করছেন না বিশেষজ্ঞরা। ঢাকার সূত্রগুলো বলছে, সরকারের চাপে নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করলেও মার্কিন ভীতি এখনো কাটেনি। বিশেষ করে ভিসা নীতির পর আরো অর্থনৈতিক স্যাংশনের বিষয়টি তাড়া করছে সরকারকে। ধরণের স্যাংশন আরোপ করা হলে সেটি সরকারের পক্ষে মোকাবিলা করা অসম্ভব হবে বলেও মনে করছেন কেউ কেউ।

শেয়ার করুন: