বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

সাপ্তাহিক নবযুগ :: Weekly Nobojug

২০৩০ সাল নাগাদ বসবে ১,৩২৫টি স্থানে

নিউইয়র্কের রাস্তায় বাড়ছে রেড লাইট ক্যামেরা

নবযুগ ডেস্ক 

প্রকাশিত: ০২:৪৮, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

নিউইয়র্কের রাস্তায় বাড়ছে রেড লাইট ক্যামেরা

প্রতিকী ছবি

আরো মৃত্যু এড়াতে নিউইয়র্ক সিটিতে রেড লাইট ক্যামেরা কর্মসূচি সম্প্রসারণ করার দাবি জোরদার করেছে পরিবহন বিভাগ, অধিকার কর্মী এবং কর্মকর্তারা।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বর্তমান কর্মসূচিটির প্রভাব সীমিত। কারণ নগরীর ১৩,৭০০টির বেশি সিগন্যালযুক্ত মোড়ের মধ্যে মাত্র ১৫০টিতে এ ধরনের ব্যবস্থা আছে। অর্থাৎ ১ ভাগেরও কম স্থানে ব্যবস্থাটি রয়েছে।

পরিবহন বিভাগ রেড লাইট ক্যামেরা বাড়ানোর কর্মসূচিটি জোরদার করার জন্য রাজ্যের আইনপ্রণেতাদের সাথে কাজ করার পরিকল্পনা করছে। তাদের উদ্যোগ সফল হলে ২০৩০ সাল নাগাদ রেড ক্যামেরা ১,৩২৫টি স্থানে বসবে। এতে করে মোড়গুলোর প্রায় ১০ ভাগ এলাকা রেড ক্যামেরার আওতায় আসবে।

এদিকে বেপরোয়াভাবে গাড়ি যারা চালায়, তাদের দমন করার জন্য পাঁচ বা এর বেশি রেড লাইট ক্যামেরা আইন লঙ্ঘনকারীর লাইসেন্স স্থগিত করার জন্য নতুন আইন প্রণয়নের আহ্বান জানানো হয়েছে।

এনওয়াইসি ডট কমিশনার ওয়াইদানিস রড্রিগেজ বলেন, ‘তিন দশকের তথ্যে বিষয়টি পরিষ্কার : রেড লাইট ক্যামেরা সংঘর্ষ কমায় এবং চালকরে আচরণ পরিবর্তন করে। কিন্তু রাজ্যের আইনে অল্প কয়েকটি মোড়েই এই নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।’

জরিপে দেখা গেছে, রেড লাইন ক্যামেরা টি-বোন ইঞ্জুরি ১৩ ভাগ কমায়। আর এসব ক্যামেরা চালকদের আচরণেও পরিবর্তন আনে। দেখা গেছে, ২০২৩ সালে ৯৪ ভাগ লঙ্ঘনকারী দুটির বেশি টিকিট খায়নি। আর মাত্র ০.৫ ভাগেরও কম চালক পাঁচ বা এর বেশি টিকিট হজম করেছে।

তাছাড়া ২০২৩ সালে মোট ২৯টি মৃত্যু হয়েছে। এসব মৃত্যুর বেশির ভাগই হয়েছে যেখানে ক্যামেরা ছিল না।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, যেসব চালক পাঁচবার রেড লাইট টিকিট খেয়েছেন, তাদের হতাহত সৃষ্টিকারী দুর্ঘটনায় পড়ার শঙ্কা তিনগুণ বেশি থাকে।

অপর এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ২০২১ সালে সকল দুর্ঘটনার ৪৫ ভাগ হয়েছে মোড়গুলোতে। তবে ক্যামেরা আছে যেসব স্থানে সেখানে ঘটেছে মাত্র ১ ভাগ। এ কারণেই রেড লাইট ক্যামেরা বসানোর দাবি ক্রমাগত বাড়ছে।
 

শেয়ার করুন: